শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে সিরিজ জয় ইংল্যান্ডের

প্রায় ছয় মাস বাদে মাঠে ফিরেই ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ হারতে হল অস্ট্রেলিয়াকে। প্রথমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, এরপর পাকিস্তান, সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়াকেও নাকানি-চুবানি খাইয়ে ছাড়ছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দু’রানে হারার পরে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচও ছয় উইকেটে হেরে গেল অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের জয়ের নায়ক বিধ্বংসী জস বাটলার।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজটি এক ম্যাচ হাতে রেখেই নিজেদের করে নিল থ্রি লায়ন্সরা। মঙ্গলবার একই ভেন্যুতে শেষ ম্যাচ অনুষ্টিত হবে।

এদিকে ১৫৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ঝড় তোলেন ইংলিশ ওপেনার জস বাটলার। তার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৭ বল হাতে রেখেই ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ইংল্যান্ড। ৪৫ বল খেলে একাই ৭৭ রান করেন বাটলার। ৮টি বাউন্ডারির সঙ্গে তিনি ছক্কার মার মারেন ২টি। তার এই ঝড়ো ব্যাটিংয়েই ইংল্যান্ডকে সহজ জয় এনে দেয়। একইসঙ্গে সিরিজও। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও উঠে তার হাতে।

বাটলারের সঙ্গে অসি বোলারদের দারুণ মোকাবেলা করেন তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা ডেভিড মালান। ৩২ বল খেলে ৪২ রান করে আউট হন তিনি। বাউন্ডারির মার মারেন ৭টি।

১৫৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জনি বেয়ারেস্টর উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। দলীয় ১৯ রানের মাথায় হিট উইকেটে আউট হয়ে যান বেয়ারেস্ট। ১১ বলে ৯ রান করেন তিনি। এরপরই বাটলার আর মালান জুটি বাধেন। এই জুটিতে উঠে আসলো গুরুত্বপূর্ণ ৮৭টি রান।

ডেভিড মালান আউট হওয়ার পর অবশ্য দ্রুত ফিরে যান টম ব্যান্টন (২ রানে) এবং অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান (৭ রানে)। শেষে মঈন আলি ৬ বলে ১৩ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

এদিকে ম্যাচের শুরু থেকেই অস্ট্রেলিয়াকে চাপে ফেলে দেয় ইংল্যান্ড। প্রথম ওভারেই ডেভিড ওয়ার্নারকে শূন্য রানে ফিরিয়ে বিপক্ষ শিবিরে ধাক্কা দেন জোফ্রা আর্চার। সেই ধাক্কা আর সামলাতে পারেননি স্টিভ স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলরা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে লড়াই করেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও মার্কাস স্টোয়নিস।

৩৩ বলে ৪০ করে দলের রান কিছুটা বাড়াতে সাহায্য করেন আইপিএলে বিরাট কোহালির দলের অন্যতম ভরসা ফিঞ্চ। চারটি চার ও দু’টি ছয়ের সৌজন্যে এই ইনিংস গড়েন তিনি। মিডল অর্ডারে স্টোয়নিস করেন ২৬ বলে ৩৫। ম্যাক্সওয়েল (২৬) ও অ্যাশটন অ্যাগার (২৩) কিছুটা চেষ্টা করলেও দলকে বড় রানে নিয়ে যেতে পারেননি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »

Translate »