রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০

সব থেকে বেশি সাপোর্ট দিয়েছে আমার কাস্টমার বোনেরা: বেনজির মুন্নি

নামঃ বেনজির মুন্নি।
পেজ নামঃ Ana’s collection & Ana’s collection bd
যাত্রা শুরুঃ ২০১৯ সালের এপ্রিল মাস।

অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে যারাঃ আমার জীবন সঙ্গী আমার হাজব্যান্ড এডভোকেট হাবিবুর রহমান। আমার বোন, ননদ, বিভিন্ন সেলার আপু। আমার সন্তানরা, মাকে কাছে না পেয়ে ও কোন অভিযোগ করেনি এটা একটা অনুপ্রেরনা। এছাড়া সব থেকে বেশি সাপোর্ট দিয়েছে আমার কাস্টমার বোনেরা। যাদের জন্য আজ আমি বেনজির মুন্নি।

বর্তমান অবস্থাঃ আলহামদুলিল্লাহ আমি একটা শোরুমের মালিক। মৌচাক, ফরচুন শপিংমল লেভেল -৫, শপ নং -২৮

ভবিষ্যত পরিকল্পনাঃ আকাশটাকে ছুঁতে পারা। অনেক মানুষের দায়িত্ব নিতে চাই। যেমনঃ এতিমদের এবং নিজের বাবা মা এর পাশাপাশি অবহেলিত বাবা মায়ের।

কেন নারী উদ্যোক্তা হওয়ার ইচ্ছে হলোঃ আমি অলরেডি একটা জবে আছি। আমি একজন সমাজ সেবী চাকরির কারনে বিভিন্ন জেলার ডিসি অফিসে গিয়েছি, বিভন্ন রকম মানুষের সাথে মিশেছি, রাতের অন্ধকারে এ শহরের অবহেলিত মানুষের পাশে দাড়াতে আমি মাঝে মাঝেই বেড়িয়ে পড়ি আমার হাজব্যান্ড সহ। কিন্তু আমি প্রোপার সাহায্য তাদের করতে পারি না কারন সেই পরিমান টাকা আমার নেই। আবার কর্মসংস্থান বৃদ্বি করা এটা ও আমার লক্ষ্য।এরমধ্যে আমার কন্যা আইনান রহমান আনা হলো আমি ও ছুটিতে চলে আসলাম বাসায় বসে ভাবলাম বসে না থেকে কাজের মধ্যে থাকি আমি কাজ প্রিয় মানুষ পরিশ্রমী। তখন অনলাইনের কথা মাথায় আসলো। তাছারা ভাবলাম বাংলার ঘরে ঘরে যেন অরিজিনাল পন্য টা পৌছে দিতে পারি এখন তো আবার নকলে ভরপুর।

অতীতের স্মৃতিঃ বিজনেস টা শুরু’র দিকে অনেক বাধাঁর সম্মুখীন হয়েছি অনেকেই চায় নি আমি বিজনেসটা করি কারন অনলাইন হলো একটা প্রতিযোগিতার মাঠ। সব থেকে বড় প্লাটফর্ম তাদের এই নেগেটিভ চাওয়াটা আমি আমার ফিডব্যাক হিসেবে নিয়েছি। অনেকে লাইভে বাজে কমেন্ট করেন হাহা রিয়েক্ট, রাগের রিয়েক্ট দিতো। যেগুলো নিয়ে আমার মধ্যে কখনো রাগ ফিল হতো না। আমি ভাবতাম এরা আমার অনুপ্রেরনা। আমি ইতিমধ্যে একটা রেডিও প্রোগ্রাম শেষ করেছি বিউটি টিপস নিয়ে। যাদের জন্য আমি আজ বেনজির মুন্নি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »

Translate »